নিষেধাজ্ঞায় ঘাবড়ানোর কিছু নেই, র‍্যাবের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এবং এই বাহিনীর কয়েকজন কর্মকর্তার ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘কিছুদিন আগে একটা দেশ র‍্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল বলে অনেকেই প্রথমে ঘাবড়ে গিয়েছিল। এখানে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। কারণ এটা আমাদের দেশ, আমরা রক্ত দিয়ে স্বাধীনতা এনেছি। আমার দেশে যারা কাজ করে তারা কে কী করে, না করে; সেটা আমরা জানি। বিচার আমরাই করবো। কেউ যদি কোনো অপরাধ করে অবশ্যই সেটা নিজেরা বলবো। পরের কথা শুনে কেউ মন খারাপ করবেন না।’

রোববার (১৯ মার্চ) রাজধানীর কুর্মিটোলায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদর দফতরে বাহিনীর ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সরকারের টানা মেয়াদে অন্যান্য বাহিনীর মতো র‌্যাবকেও ত্রিমাত্রিক বাহিনী গড়ে তোলার নানা পদক্ষেপ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তারপরও আমাদের ওপর আরেকটা বোঝা হচ্ছে, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা সমস্যা। প্রতিনিয়ত সেখানে নানান ধরনের অপরাধও ঘটছে। এ বিষয়ে সবাইকে আরও নজর দিতে হবে। কোন দুর্ঘটনা যেন কেউ না ঘটতে পারে।’

সাইবার ক্রাইমের বিরুদ্ধে সতর্ক থেকে সংশ্লিষ্টদের যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা জানি যে, দেশবিরোধী কিছু শক্তি, তারা বাংলাদেশ যত ভালো কাজই করুক না কেন তারা কিছুই চোখে দেখে না। আরেকটা শ্রেণি আছে তাদের অভ্যাসটাই হলো বিদেশিদের কাছে গিয়ে বাংলাদেশের বদনাম করা। আর এই বদনাম করে বোধ হয় তারা কিছু আর্থিক সুবিধা পায় বা অন্য কিছু সুবিধা একটা পায়। বাংলাদেশের কোন উন্নতি তো তাদের চোখেই পড়ে না। তবে আমি বলব এক্ষেত্রে কারও মনকষ্ট হওয়া উচিত না।’

‘আমরা জানি কিছুদিন আগে একটা দেশ যেহেতু র‍্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল বলে অনেকেই প্রথমে ঘাবড়ে গিয়েছিল। প্রথমে বোধহয় সবার একটা মনটা খারাপ ছিল। এখন আর সেই চিন্তা নেই। যারা এই ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে বাংলাদেশের বদনাম করে, দেশের একেকটা প্রতিষ্ঠানকে প্রশ্নবিদ্ধ করে, তাদেরও আমাদের চিহ্নিত করতে হবে। তারা কেন, কোন উদ্দেশ্যে করছে, সেটা আমাদের খুঁজে বের করতে হবে’, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!