আগামীতে নির্বাচিত হলে লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজগুলো সমাপ্ত করা হবে-তাজুল ইসলাম

আকবর হোসেন :
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলাকে আরো আধুনিক করা হবে। আগামীতে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজগুলো সমাপ্ত করা হবে। আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলায় অসংখ্য উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেছি। শত শত ব্রিজ-কালভার্ট, রাস্তা-ঘাট, স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মাদ্রাসায় উন্নয়ন করেছি।
ইনশাআল্লাহ আগামীতে এমপি হলে আমার এলাকায় অসমাপ্ত সকল উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করা হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে শেখ হাসিনার সরকার কাজ করছে।  খুব শীঘ্রই বাংলাদেশ উন্নত দেশের কাতারে স্থান করে নিবে।
লাকসাম পৌরসভায় শত শত কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন হয়েছে। নৌকা মার্কা মানে দেশের মানুষের উন্নয়ন, নৌকা মার্কায় ভোট দিলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকে এবং দেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়।
গতকাল রবিবার কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নির্বাচনী মত বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
এ সময় তিনি আরো বলেন, আমার নির্বাচনী আসন লাকসাম ও মনোহরগঞ্জের উন্নয়ন আর আপনাদের সমস্যা সমাধানে দিন-রাত শ্রম দিয়েছি। আপনাদের জন্য কাজ করতে গিয়ে নিজের পারিবারিক জীবন বিসর্জন দিয়েছি। আপনাদের জন্য আমি সব সময় কষ্ট করেছি, আপনাদের সুখে- দু:খে সব সময় পাশে থেকেছি, আপনাদের ডাকে সব সময় সাড়া দিয়েছি।
আপনারা আমার জন্য একদিন কষ্ট করবেন অর্থাৎ ভোটের দিন আপনারা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে আমাকে নৌকা মার্কা প্রতীকে ভোট দিবেন। আসন্ন নির্বাচনে ভোটের দিন আপনাদের জন্য ব্যয় করা শ্রমের মূল্য চাই। আমি আপনাদের সন্তান এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর আপনাদের সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে ছিলাম। যতদিন বেঁচে আছি তত দিন আপনাদের পাশে থাকব। তাই আগামী ৭ জানুয়ারির  নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে আমাকে ভোট দেওয়ার জন্য আপনাদেরকে আহ্বান জানাচ্ছি। একই দিন মন্ত্রী মনোহরগঞ্জ উপজেলার বাইশগাঁও, হাসনাবাদ ও মৈশাতুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নির্বাচনী মত বিনিময় সভা করেছেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য মাষ্টার আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা মহিলা লীগের আহ্বায়ক এডভোকেট তানজিনা আক্তার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলাম, মন্ত্রীর উন্নয়ন সমন্বয়ক মো. কামাল হোসেন, চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, মফিজুর রহমান, কামাল হোসেন, আশিকুর রহমান হিরণ, আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, আবুল বাশার মজুমদার, দেলোয়ার হোসেন ভেন্ডর, গাজী গোলাম সরোয়ার, লায়ন মহসিন খাঁন স্বপন,
সৈয়দ আবদুল মতিন বাবুল, ডাক্তার বেলায়েত হোসেন, প্রফেসর আমির হোসেন মন্টু, আলমগীর হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য শাহাদাত হোসেন, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক দেওয়ান জসিম উদ্দিন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মো. সেলিম কাদের চৌধুরী, সদস্য সচিব জীবন দেবনাথ টুটুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান শামীম, সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বিপ্লবসহ উপজেলা এবং হাসনাবাদ, বাইশগাঁও, মৈশাতুয়া ও  ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!