এতিম শিশুদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে কেক কাটলেন পুলিশ কর্মকর্তা

মো.জাকির হোসেন :
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এতিম শিশুদের নিয়ে দোয়ার আয়োজন কেক কাটা ও মিষ্টি বিতরণ করলেন পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃআব্দুল্লাহ আল মামুন। যিনি বর্তমানে
কুমিল্লায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( দক্ষিন সার্কেল) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
গতকাল ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আদর্শ সদর উপজেলার শিমড়া হুব্বুন্নাবী হাফেজিয়া মাদ্রসা ও এতিম খানায় তিনি এমন আয়োজন করেন।
গতকাল বাদ আসর শিমড়া হুব্বুন্নাবী হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিম খানায় দোয়া মোনাজাতে অর্ধশত এতিম শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এ সময় বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনাসহ দেশ ও জাতির কল্যানে দোয়া করা হয়। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মাদ্রাসার পরিচালক মোর্শেদুল ইসলাম ও হাফেজ মোহাম্মদ শামীম।
দোয়া মোনাজাতের পরে শিশুদের হাতে লাল সবুজের বেলুন তুলে দিয়ে মাদ্রাসার শিক্ষক পরিচালক ও এতিম শিশুদের নিয়ে কেক কাটেন পুলিশ সুপার মোঃআব্দুল্লাহ্ আল মামুন।পরে তিনি নিজের হাতে শিশুদের মাঝে কেক ও মিষ্টি বিতরণ করেন।
মাদ্রাসার পরিচালক মোর্শেদুল ইসলাম বলেন, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন স্যার, বিভিন্ন উপলক্ষে মাদ্রাসার এতিম শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করেন। এতিম শিক্ষার্থীদের সাথে সময় কাটান। তবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মাদ্রাসায় আসেন। শিশুদের নিয়ে একসাথে নামাজ আদায় করেন। পরে দোয়া মোনাজাতের আয়োজন করেন। শিশুদের নিয়ে কেক কেটে নিজ হাতে বিতরণ করেন। শিশুরা অনেক আনন্দ পেয়েছে। লাল সবুজের পতাকা উড়িয়ে অনেক আনন্দ করেছে।
এক অনুভূতি প্রকাশ করে পুলিশ সুপার মোঃআব্দুল্লাহ্ আল মামুন জানান, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। গতকাল বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ছিলো। এ উপলক্ষে এতিম শিশুদের নিয়ে দোয়া মোনাজাত করেছি। শিশুদের নিয়ে কেক কেটেছি। শিশুরা আনন্দিত হয়েছে। শিশুদের আনন্দ দেয়ার জন্যই আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমি বিশ্বাস করি আজকের শিশুরাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করে আগামীর সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মান করবে।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
error: ধন্যবাদ!