কুমিল্লায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধ: ডাকাত নিহত

মো.জাকির হোসেন :

কুমিল্লায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ৫ মামালার আসামী মাজহারুল ইসলাম (২৪)
নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে।

রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের পাশে বুড়িচং উপজেলার
পশ্চিমসিং এলাকায় বন্ধুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত মাজহারুল ইসলাম জেলার দেবিদ্বার উপজেলার মাশিকাড়া গ্রামের প্রয়াত মঈন
উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাতির বিভিন্ন
সরঞ্জামাদি উদ্ধার করেছে।

পুলিশ জানায়, মহাসড়কের পশ্চিমসিংহ এলাকায় সংঘবদ্ধ একটি ডাকাতদল ডাকাতির
প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুড়িচং থানার ওসি মোজাম্মেল হক ও
ডিবি’র পরিদর্শক ইকতিয়ার উদ্দিনের নেতৃত্বে অভিযানে যায় পুলিশ। পুলিশের
উপস্থিতি টের পেয় ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ও গুলি ছুড়ে। এসময়
পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে মাজহারুল ইসলাম গুলিবিদ্ধ
হয়ে আহত হয়। গোলাগুলির এক পর্যায়ে অন্য ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার
করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত
ঘোষণা করেন।

বুড়িচং থানার ওসি মো. মোজাম্মেল হক জানান, নিহত মাজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে
অস্ত্র, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযাগে অন্ততঃ ৫ টি মামলা রয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে
মহাসড়কে ডাকাতদের আতঙ্কে অতীষ্ঠ ছিল যাত্রীরা। এরই মধ্যে ডাকাতদের হাতে খুন হন
দুই ব্যবসায়ী। এর একটি হত্যাকাণ্ডের ক্লু খুঁজতে গিয়ে মাজহারুলসহ অন্যান্য
ডাকাতদের জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয় পুলিশ। পরে মহাসড়কের চান্দিনায়
ডাকাতিকালে একজনকে ও অভিযান চালিয়ে আরো একজন আটক করা হয়। এ দু’টি অভিযানের সময়
দু’বারই কৌশলে পালিয়ে যায় মাজহারুল। তাকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে সোমবার মধ্যরাতে
বুড়িচং উপজেলার পশ্চিমশিং এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত
দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ও ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। এ সময় পুলিশও
পাল্টা গুলি ছুঁড়লে ডাকাতরা পিছু হটে পালিয়ে যায়। পরে সেখানে মাজহারুলকে আহত
অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!