কুমিল্লা সদর দক্ষিণে দিনে-রাতে কাটছে লালমাই পাহাড় এলাকা,ধরা ছোঁয়ার বাহিরে মূলহোতারা

মাজহারুল ইসলাম বাপ্পি :
কুমিল্লা সদর দক্ষিণের লালমাই মৌজায় দিনে-রাতে প্রকাশ্যে কাটছে লালমাই পাহাড়ের পাদদেশ। আবার সুযোগে পাহাড় কাটাও থেমে নেই। সব মিলিয়ে স্থানীয় সিন্ডিকেটের চলছে পাহাড়ি এলাকায় মাটি কাটার ধূম। রবিবার সন্ধ্যায় সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিয়া মোহাম্মাদ কেয়ামউদ্দিন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে মাটি কাটার অপরাধে ৩ ড্রাম ট্রাক চালক কে সাত দিনের জেল ও মাটি কাটা সহযোগিতা করায় আরো ৩ জনকে অর্থ দন্ড প্রদান করেন। তবে মাটি কাটার সাথে জড়িত মূলহোতা চন্দন চক্রবর্তী ও জাহাঙ্গীর সহ মূল অপরাধীরা এখনো ধরা ছোঁয়ার বাহিরে রয়েছে।
সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার বিজয়পুর ইউনিয়নের মধ্যম বিজয়পুর মধ্যম পাড়া, ষাট কলোনী সহ বিভিন্ন স্পটে দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় প্রভাবশালীদের যোগসাজসে চন্দন চক্রবর্তী ওরফে চন্ডি ও জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে লালমাই পাহাড়ের পাদদেশে মাটি কাটার ধূম চলছে। ফলে এক দিকে যেমনি ভাবে বর্ষা মৌসুমে কুমিল্লার ঐতিহ্যবাহী লালমাই পাহাড় ধষে পরার আশঙ্কা রয়েছে, তেমনি ভাবে চরম হুমকির মুখে পরিবেশ। এছাড়াও ড্রাম ট্রাকের মাধ্যমে রাত-দিন মাটি বহনের ফলে জেলখানা বাড়ি-মধ্যম বিজয়পুর-রাজারখলা সড়কটিতে চলাচলকারী কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ বায়ু দূষণে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। হুমকির মুখে কয়েক কিলোমিটার সড়ক। মাটি বহনের ফলে এ রকম দূর্ভোগ পোহাতে বাধ্য হলেও স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের ভয়ে এত দিন মুখ খুলেনি ভোক্তভুগিরা।জনসাধারণের দূর্ভোগ লাগবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা। এ দিকে শনিবার সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজয়পুর ইউনিয়ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাটি বহনকারী ৪টি ড্রাম ট্রাক আটক করে। রবিবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনে ৩ ড্রাম ট্রাক চালককে সাত দিনের জেল ও অপর ৩ সহযোগির ২ জনকে ২০ হাজার,১জনকে ১০ হাজার সহ মোট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
বিজয়পুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম খোকা বলেন, যারা পাহাড় কাটার সাথে জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা উচিত। বহিরাগত মাটি ব্যবসায়িদের ভারী যানবাহন চলাচলে ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়ক বর্তমানে হুমকির মুখে।
এ ব্যাপারে সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিয়া মোহাম্মাদ কেয়ামউদ্দিন বলেন, মাটি কাটার অপরাধে তিন জনকে জেল ও তিন জনকে অর্থদন্ড দেয়া হয়েছে। মাটি কাটার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!