ফেইসবুকে ভিডিও দেখে পাবনার প্রতিবন্ধীকে মুরাদনগরে এনে আর্থিক সহায়তা প্রদান

আরিফ গাজী :

‘ফেসবুকে পাবনার প্রতিবন্ধী রজ্জব আলীর গানের ভিডিও ও তার আর্থিক সহায়তা চাওয়ার আকুতি দেখে গত ৩ মাস আগে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেন মুরাদনগর উপজেলা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ ছফিউল্লাহ ভূইয়ার’। সেই সময় প্রতিবন্ধী রজ্জব আলী বিভিন্ন কারণে মুরাদনগরে আসতে রাজি হয়নি।

দীর্ঘদিন যোগাযোগের পর প্রতিবন্ধী রজ্জব আলীর কাছে আস্থা অর্জন করতে পারেন ছফিউল্লাহ ভূইয়া এবং সে মুরাদনগরে আসতে রাজি হয়।

তারই জেরে শনিবার বিকাল ৬ টার দিকে পাবনা থেকে একজন সঙ্গী নিয়ে মুরাদনগর উপজেলার ঘোড়াশাল গ্রামে সফিউল্লাহ ভূইয়ার বাড়িতে আসেন প্রতিবন্ধী রজ্জব আলী।
শুরুতে প্রতিবন্ধী রজ্জব আলীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন ছফিউল্লাহ ভুইয়া। পরে মুরাদনগর সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও ঘোড়াশাল গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের সামনে একটি অটোরিকশা, একটি ছাগল ক্রয় করাসহ পরিবারের এক মাসের খরচ ও পাবনা থেকে মুরাদনগরের যাতায়াত ভাড়া হিসেবে নগদ ৬৫ হাজার টাকা এবং একটি মোবাইল ফোন প্রতিবন্ধী রজ্জব আলীর হাতে তুলে দেন মোঃ ছফিউল্লাহ ভুইয়া। প্রতিবন্ধী রজ্জব আলী পাবনা জেলার ফরিদপুর থানার ডেমরা ইউনিয়নের মন্টু খন্দকারের ছেলে।

আর্থিক সহায়তা পেয়ে প্রতিবন্ধী রজ্জব আলী বলেন, এর আগে অনেকেই আমার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেছে। তবে কেহই সহযোগিতার হাত নিয়ে আমার পাশে দাঁড়ায়নি। অনেকে এমনও করেছে আমাকে সহযোগিতা দিবে বলে অন্যত্র নিয়ে গিয়ে আমাকে ভিক্ষা করার জন্য বাধ্য করতে চেয়েছে। ভিক্ষা করলে তো আমার নিজ এলাকায় করতে পারি। মূলত আমার পরিবারে আমার বাবা-মা স্ত্রী সন্তান রয়েছে। আমি তাদেরকে ভিক্ষা করে নয় আমার উপার্জনের টাকা খাওয়াতে চাই। মহান রাব্বুল আলামীন হয়তো আমাকে সে সুযোগ করে দিয়েছে উনাদের মাধ্যমে। আমি মুরাদনগরের মানুষের ভালোবাসায় মুগ্ধ। সুযোগ পেলে আমি মুরাদনগরে আবারও বেড়াতে আসবো।

এ বিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ ছফিউল্লাহ ভূইয়া বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আমি প্রতিবন্ধী রজ্জব আলীর একটি গান শুনে তার প্রতি ভালোবাসা তৈরি হয়। পরে বিষয়টি আমি মুরাদনগর এর গণমানুষের নেতা স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ মহোদয়কে জানাই। তিনি বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিক আমাকে বলেন প্রতিবন্ধী রজ্জবের সহযোগিতায় যা যা করনীয় তাই করতে।

আমি পরবর্তীতে খোঁজখবর নিয়ে রজ্জব যেন আর ভাড়া অটো রিক্সা চালাতে না হয় সেজন্য একটি নতুন অটোরিকশা কেনার টাকা, তার স্ত্রীকে লালন পালন করার জন্য একটি খাসি ও সে কথা বলার মত কোন মোবাইল ফোন না থাকা একটি নতুন মোবাইল সেট দেয়া হয়েছে। আমি মনে করি রজ্জব একজন আত্মমর্যাদাশীল ব্যক্তি সে প্রতিবন্ধী হওয়ার পরেও ভিক্ষাবৃত্তি করে না। সে যেন সৎ ভাবে উপার্জন করে বাঁচতে পারে এই প্রত্যাশা করি।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!