আলী আজ্জম পাগলার মৃত্যুতে এসআই খাদেমুল বাহার এর হৃদয় স্পর্শী স্ট্যাটাস

কুমিল্লা এসডি নিউজ রিপোর্ট :

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদ এলাকার আলী আজ্জম ওরফে পাগলা কাকুকে কমবেশি সবাই চেনে। কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানা এবং উপজেলা পরিষদে যারা চাকুরী করেন কিংবা সেবা নিতে আসেন তাদের সকলের নিকট পাগলা কাকু নামটি খুব বেশি’ই পরিচিত। আর পাগলা কাকু’র আস্থার ও ভালোবাসার জায়গাটি’ই ছিল কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার এস আই খাদেমুল বাহার। পাগলা কাকুর হঠাৎ মৃত্যুতে
এসআই খাদেমুল বাহার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হৃদয় স্পর্শী স্ট্যাটাস দিয়েছেন। নিন্মে তা হুবহু তুলে ধরা হলো…………

আমার সদর দ‌ক্ষিন ম‌ডেল থানা কু‌মিল্লায় চাকুরীর সুবা‌ধে আলী আজ্জম প্রকাশ পাগলা কাকুর সা‌থে দীর্ঘ প‌রিচয়। পাগল এই মানুষ‌টি আমা‌কে স্বার্থহীন ভালবাস‌তেন। আ‌মিও সহজ সরল চঞ্চল মানুষ‌টি‌কে ভালবাসতাম। আমার প্রতি তার ভালবাসার গ‌তি ছিল অসার। আমা‌কে কিছু সম‌য়ের জন্য না দেখ‌লে তা‌কে পীড়া দিত। তি‌নি প্রতি‌নিয়ত দরজার কড়া নে‌ড়ে আমার সকা‌লের ঘুম ভঙ্গা‌তেন।অন্তপ্রান পাগল মানুষ‌টির কাছে থে‌কে শি‌খে‌ছি তার মে‌য়ের প্রতি অ‌বিচল ভালবাসা। গত১০/১০/২১ খ্রিঃ তা‌রিখ সন্ধা হ‌তে রাত ০২:০০ ঘ‌টিকা পর্যন্ত কা‌টি‌য়ে‌ছেন আমার সা‌থে অ‌ফি‌সে থানার সাম‌নে রাস্তায় ও রু‌মে পৌছা‌নো পর্যন্ত। এর ম‌ধ্যে ১২:১৫ ঘ‌টিকার সময় আমার সা‌থে রা‌তের খাবার খে‌য়ে‌ছেন।‌ কে জা‌নে আ‌জিই তাহার এই ধরনী‌তে শেষ রাত? কে জা‌নে ইহাই তাহার পৃ‌থিবী নামক গ্রহে শেষ বিচরন ও খাবার।‌ ভোর ‌বেলায় মোবাইল ফো‌নের আওয়া‌জে ঘুম ভেঙ্গে যায়। অপর প্রা‌ন্তে তার ছে‌লে শা‌হিন ও তার ভা‌তিজা দুলা‌লের কান্না জ‌ড়িত ক‌ন্ঠে শুন‌তে পাই তার বাবা/চাচা পা‌নি‌তে ডু‌বে গে‌ছে পাওয়া যা‌চ্ছেনা। অব‌শে‌ষে ফায়ার সা‌র্ভিসের সহায়তায় পাওয়া গেল নিথর দেহ।‌ নি‌জে‌কে বুঝা‌তে পা‌রি‌নি? ধ‌রে রাখ‌তে পা‌রি‌নি হৃদ‌য়ের মর্মস্পী আর্তনাদ? কাকু আপ‌নি আর আমা‌কে ডাক‌বেনা? আপ‌নি যে চ‌লে গিয়ে‌ছেন আপনার স‌ঠিক ঠিকানায়। আ‌মি আস‌ছি সময় হয়‌তো দূ‌রে নয়? পরাপ‌রে সাক্ষা‌তের সু‌যোগ থাক‌লে দেখা হ‌বে কাকু।ভাল থাক‌বেন পরাপ‌রে। মহান আল্লাহর কা‌ছে ভাল থাক‌বেন। দোয়া ক‌রি। আমা‌দের‌কে ক্ষমা ক‌রে দি‌বেন কাকু।আল্লাহ তায়ালা আপনা‌কে জান্নাতবা‌সি করুক। আ‌মিন।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
error: ধন্যবাদ!